বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৩৯ অপরাহ্ন


কন্ডিশনের প্রভাবে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হচ্ছে দল। পাশাপাশি কার্ডিফের মাঠও ভাবনায় আছে টিম ম্যানেজম্যান্টের। যতুটুকু জানা গেছে, টিম ম্যানেজম্যান্টের পরিকল্পনা একজন স্পিনার বসিয়ে বাড়তি পেসার নেওয়া। সেই হিসেবে মেহেদী হাসান মিরাজকে বসিয়ে রুবেল হোসেনকে দলে নেওয়ার পরিকল্পনা দলের!

সাকিব আল হাসানের দলে থাকা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। প্রথম দুই ম্যাচে স্পিনে হাত ঘুরিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মেহেদী হাসান মিরাজ। দুজনই বোলিংয়ে সফল হয়েছেন। ফিল্ডিংয়ে ছিলেন প্রাণবন্ত। ব্যাটিংয়ে মোসাদ্দেক শেষ দিকে বেশি কার্যকরী হওয়ায় তাকে নিয়েই ঝুঁকি নিতে চাচ্ছে দল।

পারফর্ম করা সত্ত্বেও বিরুদ্ধ কন্ডিশন, ভয়ংকর প্রতিপক্ষ ও ‘ছোট ‘মাঠের প্রভাবে মিরাজকে সাইডেবেঞ্চে থাকতে হবে। অন্যদিকে সবকিছু বিবেচনায় পরীক্ষিত রুবেল হোসেনকে দলে নেওয়ার পরিকল্পনায় বাংলাদেশ। বাড়তি পেস, বাউন্স ও বৈচিত্র্য থাকায় রুবেল হোসেন ইংলিশ কন্ডিশনে ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে। তার থেকে সেরা পারফরম্যান্সটা প্রত্যাশা করছে টিম বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা শেষ ম্যাচ হেরে বাংলাদেশের ওপর চেপে বসতে চাইবে।

বাংলাদেশও প্রস্তুত তাদের রুখে দিতে। তবে নির্দিষ্ট পরিকল্পনায় এগোচ্ছে দল। দলের বৈঠক হবে রাতে। সেখানেই হবে রণ কৌশল। দলে যে পরিবর্তন আসবে সেই আভাসও দিয়েছেন মাশরাফি।

‘পরিকল্পনা হচ্ছে কন্ডিশন অনুযায়ী পরিবর্তন করা। পরিবর্তন করলেই যে ফল আসবে এমনটা নয়। তবুও এটা নির্ভর করছে অনেক কিছুর ওপর। যদি এরকম বৃষ্টি হতে থাকে আমাদের সিদ্ধান্ত ভিন্ন হতে পারে। যদি এরকম না হয় তাহলে ম্যানেজম্যান্ট সিদ্ধান্ত নেবে। কেউ যদি ভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে আসে তাহলে আমরা চিন্তা করব। এই মুহূর্তে আমরা বেশিকিছু নিয়ে ভাবছি না। যদি এরকম কিছু হয় তাহলে আবাহওয়া একটা ইস্যু হতে পারে।’

আরও পড়ুন