সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন


একটি দেশের সাবেক মন্ত্রী-আমলাদের অবস্থা কেমন হতে পারে? পরিস্থিতিভেদে একেকজন একেক অবস্থায় থাকেন নিশ্চয়ই। কিন্তু কঙ্কালসার হয়ে জীর্ণ ঘরে কি দিন কাটায় কেউ? আশ্চর্যজনক হলেও এমনটাই ঘটেছে সুদানে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কর্নেল ইব্রাহিম ছামসাদিনের একটি হৃদয়বিদারক ছবি ভাইরাল হয়েছে।

আফ্রিকাভিত্তিক একটি সংবাদমাধ্যমের দাবি, সম্প্রতি দেশটির একটি মসজিদের নিচে অবস্থিত একটি কারাগারের একটি নির্জন কক্ষে তার সন্ধান পাওয়া গেছে। অথচ সুদান সরকারের দাবি, বিমান দুর্ঘটনায় ২০০৮ সালের ১১ জুন মারা যান কর্নেল ইব্রাহিম।

তবে ঘটনা আসলে কোনটা সত্য। সাবেক এই প্রতিরক্ষামন্ত্রী কি সত্যিই মারা গেছেন? নাকি সম্প্রতি তাকে নির্জন একটি কক্ষে বন্দি অবস্থায় খুঁজে পাওয়া গেছে। মূলত ফেমি ফেনি-ক্যাইওড নামে একজন নাইজেরীয় রাজনীতিবিদের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে এই বিতর্কের সূত্রপাত।পোস্টে ওই রাজনীতিবিদ লিখেছেন, ‘সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইব্রাহিম চামসাদিনকে একটি নির্জন কক্ষে সম্প্রতি খুঁজে পাওয়া গেছে। অথচ স্বৈরশাসক বশির সরকার মিথ্যা ঘোষণা দেয় যে, ২০০৮ সালে বিমান দুর্ঘটনায় তিনি মারা গেছেন।’

জানা যায়, সুদানের স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির তার অবৈধ শাসনের প্রতিবাদ করায় ১৯৯৫ সালে দেশটির তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইব্রাহিম ছামসাদিনকে জেলে পাঠান।

ইব্রাহিম ছামসাদিনের বর্তমান অবস্থার সাথে সাথে তার মন্ত্রী থাকাকালীন একটি ছবিও প্রকাশ করে আফ্রিকান গণমাধ্যমগুলো। উল্লেখ্য, দেশটির সাবেক স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির নিজেও বর্তমানে জেলখানায় আছেন।

তবে পূর্ব-আফ্রিকার অর্থনৈতিক ও অন্যান্য ঘটনা নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠান পেসাচেক বলছে ভিন্ন কথা। তারা জানিয়েছে, আলোচিত ছবিটি সুদানের সাবেক সহকারী প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইব্রাহিম চামসাদিনের নয়। কেনিয়ায় ভয়াবহ খরা চলাকালীন দুর্ভিক্ষ আক্রান্ত একজন মানুষের ছবি সেটি। ২০০৮ সালের এপ্রিলে একটি সামরিক বিমান দুর্ঘটনাতেই নাকি মৃত্যু হয়েছিল ইব্রাহিম চামসাদিনের।

আরও পড়ুন